Home More সরকারের ১০ কোটি টাকা আত্মসাত: ২ কর্মকর্তা বরখাস্ত

সরকারের ১০ কোটি টাকা আত্মসাত: ২ কর্মকর্তা বরখাস্ত

6
0

সারাদেশে আলোচিত পর্দা কেলেংকারীর ঘটনায় ফলিদপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল স্থাপন প্রকল্পের সাবেক দুই প্রকল্প পরিচালক ডা. আস.স. ম জাহাঙ্গীর চৌধুরী ও ডা. গণপতি বিশ্বাসকে চাকরি থেকে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. মাইদুল ইসলাম প্রধান গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে উপস্থাপিত এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবের সার সংক্ষেপে রাষ্ট্রপতি কর্তৃক অনুমোদনের মাধ্যমে উল্লেখিত দুই কর্মকর্তার চাকরি হতে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত হিসেবে পরিগণিত হয়েছে।

এর আগে ২০১২-২০১৬ সাল পর্যন্ত কেনাকাটায় সরকারি অর্থ ব্যয়ের হিসেবে উঠে আসে পর্দা কেলেংকারীর তথ্য। সে বছরের ২৭ নভেম্বর পর্দা কেলেঙ্কারির ঘটনায় দুদকের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়। ফরিদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলাটি দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন প্রধান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী। মামলায় আসামি করা হয় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারসহ হাসপাতালে সে সময়ে দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের।

মামলার আসামিরা হলেন- মেসার্স অনিক ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধীকারী আবদুল্লাহ আল মামুন, মেসার্স আহমেদ এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধীকারী মুনসী ফররুখ আহমেদ, জাতীয় বক্ষব্যাধি হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মুন্সী সাজ্জাদ হোসেন, ফরিদপুর মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের সাবেক তত্ত্বাবধায়ক ডা. গণপতি বিশ্বাস শুভ, ফরিদপুর মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. মিনাক্ষী চাকমা এবং ফরিদপুর মেডিক‌্যাল কলেজ হাসপাতালের সাবেক প্যাথলজিস্‌ট ডা. এ এইচ এম নুরুল ইসলাম।

মামলার আর্জিতে বলা হয়েছে, অসৎ উদ্দেশ্যে ক্ষমতার অপব্যবহার করে পরস্পরের যোগসাজশে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজের জন্য অপ্রয়োজনীয় এবং অবৈধভাবে প্রাক্কলন ব্যতিত উচ্চমূল্যে হাসপাতালের যন্ত্রপাতি ক্রয়ের মাধ্যমে সরকারের ১০ কোটি টাকা আত্মসাতের চেষ্টা করেছেন।

মামলার দুই আসামি মেসার্স অনিক ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধীকারী আবদুল্লাহ আল মামুন ও জাতীয় বক্ষব্যাধী হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা মুন্সী সাজ্জাদ হোসেন নিম্ন আদালতে জামিন না পেয়ে উচ্চ আদালতে জামিন আবেদন করেন।

উচ্চ আদালতও মঙ্গলবার তাদের জামিন আবেদন খারিজ করে দিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here